সর্বশেষ:

শিশুদের  জন্য  মৌসুমী  ফল

শিশুদের  জন্য  মৌসুমী  ফল

সিনাম (মুক্তাগাছা রিপোর্টার): ষড়ঋতুর  দেশ  আমাদের  এই   বাংলাদেশে  বিভিন্ন  মৌসুমে  যে  সকল  ফল  মূল  জন্মে  থাকে  সে  সব ফল  মূল  কে  মৌসুমী  ফল  বলা  হয়ে থাকে। আমাদের  বাংলাদেশে  প্রত্যেক বছরই  বিভিন্ন  সময়ে  অনেক  প্রজাতির  মৌসুমী  ফল  মূল  জন্মে  থাকে। এদের  মধ্যে  কয়েকটি  হল- আম, জাম, কাঁঠাল, আতা, জামরুল, আনারস, লিচু, নাসপাতি, সফেদা, কদবেল, ডালিম,  লট্কন, পেয়ারা  ইত্যাদি। এই  সকল  ফলের  মধ্যে  প্রায়  সব  গুলোই  বেশ  সুস্বাদু  হয়ে  থাকে। এছাড়া  প্রত্যেকটি  ফল  অনন্য  গুণে  সমৃদ্ধ।

প্রতেকটি মৌসুমী  ফলেই  যেথেষ্ঠ  পরিমাণে ভিটামিন “এ”, ভিটামিন “সি”, ভিটামিন “কে”,  লৌহ, খনিজ  লবণ, ক্যালসিয়াম, বিভিন্ন  খনিজ  পদার্থ ইত্যাদি  থাকে  যা  সকল  বয়সের  মানুষের  জন্য  খুবই  উপকারী। আর এই  সব  ফল  শিশুদের  জন্যও  খুবই উপকারী। এসব  ভিটামিন  ও  খনিজ পদার্থ  শিশুদের  বেড়ে  ওঠার  জন্য, শরীর  গঠনের  জন্য, রোগ  প্রতিরোধ ক্ষমতা  তৈরির  জন্য  খুবই  প্রয়োজনীয়।

শিশুদের  জন্য  মৌসুমী  ফল  মূল  খুবই উপকারী। কেননা  প্রত্যেকটি  ফলে  যে সকল  ভিটিমিন  থাকে  সে  সব  গুলোই শিশুদের  স্বাস্থ্য  রক্ষার  জন্য  এবং শিশুদের  স্বাস্থ্য  গঠনের  জন্য  খুবই প্রয়োজনীয়। তাই  বাবা – মা  দের  উচিৎ তাদের  সন্তানকে  বিভিন্ন  মৌসুমী ফলের  সময়ে  বেশি  বেশি  করে  ফল খেতে  দেওয়া। শিশুরা  অনেক  সময় কিছু  খেতে  চায়  না। কিন্তু  তাদেরকে বিভিন্ন  সময়ে  বিভিন্ন  ধরনের  ফল  মূল  দেওয়া  গেলে  তাদের  রুচির  পরিবর্তন ঘটে। তাই, তাদের  খাওয়ায়  মন  বসে। শিশুদেরকে  বার  বার  একই  খাবার না  দিয়ে  ভিন্ন  ভিন্ন  খাবার  দিলে  তাদের  রুচি  ঠিক  থাকে।

অনেকেই  মনে  করেন  যে  বিদেশী  ফল  মূলে  বেশি  পরিমাণে  ভিটিমিন থাকে। তাই  তারা  দেশীয়  ফল  মূলকে বেশি  গুরুত্ব  না  দিয়ে  বিদেশী  ফল মূলের  উপর  বেশি  গুরুত্ব  দিয়ে  বেশি টাকা  দিয়ে  বিদেশী  ফল  মূল  কিনে থাকেন। কিন্তু  অনেকেই  জানেন  না  যে দেশি  ফল  মূলের  দাম  বিদেশী  ফল মূলের  থেকে  কম  হলেও  তাতে বিদেশী  ফল  মূলের  থেকে  অনেক বেশি  পরিমাণে  ভিটামিন  থাকে  এবং গুণের  দিক  থেকেও  অনেক  বেশি। তাই আমাদের  সকলের  উচিৎ  বিভিন্ন সময়ে  আমাদের  দেশে  যে  সকল  ফল মূল  জন্মে  সেগুলোকে  বেশি  বেশি পরিমাণে  খাওয়া  এবং  সকলকে  তা খাওয়ার  পরামর্শ  দেওয়া

আরো খবর: