সর্বশেষ:

প্রযুক্তির সাথে শিশুরা

প্রযুক্তির সাথে শিশুরা

রাফে মুয়াজ রিদওয়ান সিনাম: বিজ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে নতুন যা উদ্ভাবন করা হয় তাই হল প্রযুক্তি। আর এই প্রযুক্তির হাত ধরেই আস্তে আস্তে এগিয়ে চলছে আমাদের এই সমাজ, দেশ এবং পুরো পৃথিবী। একই সাথে সবই ধীরে ধীরে হয়ে যাচ্ছে প্রযুক্তি নির্ভরশীল এবং সেই সাথেই নানা ধরনের প্রযিক্তির সংস্পর্শে আসছে ছোট শিশুরাও। শিশুরা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রযুক্তির সম্মুখীন হচ্ছেএবং সেগুলোর প্রতি তাদের উৎসাহ বাড়ছে আর সেই প্রযুক্তির ব্যবহার সম্পর্কেও তারা শিখে নিচ্ছে।

আজকাল আমরা নানা ধরনের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের দ্বারা একে অপরের সাথে যুক্ত হয়ে আছি। একে অপরের সাথে যোগাযোগ রক্ষার্থে এই সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোন জুড়ি নেই। যেমন: ফেইসবুক, টুইটার, ই-মেইল, হোয়াটস্ অ্যাপ ইত্যাদি। এদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটি হল ফেইসবুক। শিশুরাও আজকাল এই সব সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোকে বেঁছে নিচ্ছে।

আদিমকাল থেকেই মানুষ তাদের নানা প্রয়োজনে বিজ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে নানা প্রযুক্তির উদ্ভাবন করেছে এবং তা তাদের কাজে লাগিয়েছে। আর বর্তমানে বিজ্ঞান এতোটাই শক্তিশালী এবং সমৃদ্ধশালী হয়েছে যে, একটি কাজ করতে আজকে আমরা যে প্রযুক্তিটির ব্যবহার দেখতে পারছি, কিছুদিন পর সেই কাজেই আর আগের প্রযুক্তিটিকে আর দেখতে পারছি না। কেন না সেই প্রযুক্তিটিই আরও অনেক উন্নত হয়ে গিয়েছে।

আধুনিক বিশ্বে প্রযুক্তির এতোটাই অগ্রগতি হয়েছে যে, আমরা সম্প্রতি শুনতে পেলাম যে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা প্লেটো নামক একটি নতুন গ্রহ অনুসন্ধানে “নিউ হর”

আরো খবর: