জাতীয় শিশু দিবসে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে “ইচ্ছে পূরন” এর ভিন্ন ধরনের আনন্দ উদযাপন

জাতীয় শিশু দিবসে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে “ইচ্ছে পূরন” এর ভিন্ন ধরনের আনন্দ উদযাপন

পৃথিবী জুড়ে ছড়িয়ে থাকা বিস্ময়কর নানা কিছুর মাঝে শিশুরাও এক বিস্ময়। আর আমাদের দেশের শিশুদের বৃহৎ অংশই হলো সুবিধা বঞ্চিত শিশু। শিশু দিবস পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময়ে পালিত হয়ে থাকে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শিশুদের সব সময় ভালোবাসতেন এবং আদর করতেন। সব সময় শিশুদের নিয়ে তার অনেক স্বপ্ন ছিল।
একদল তরুণ যুবকদের নিয়ে ২০১৪ সাল থেকে “ইচ্ছে পূরন” এর যাত্রা শুরু হয়। “ইচ্ছে পূরন” এর লক্ষ্য সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মনের ইচ্ছে পূরন করা। তারই পরিপেক্ষিতে আজ ১৭ মার্চ কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর মাঠে “ইচ্ছে পূরন” এর আয়োজনে এবং এপেক্্র ক্লাব অব কুষ্টিয়ার সহযোগিতায় সারাদিন ব্যাপি ২০ জন বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু এবং ৩০ জন সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে আনন্দ উদ্যাপন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে শিশুদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, শিশুদের সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার প্রদান, শিক্ষা উপকরন, পুরস্কার প্রদান ও শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়।
অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে এপেক্স ক্লাব এর সিনিয়র সভাপতি জনাব কাজি রফিক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এপেক্সশিয়ান জনাব কে এম জাহিদ, এপেক্সশিয়ান জনাব আব্দুল আওয়াল ও এপেক্সশিয়ান জনাব নাইম উদ্দিন। এদিকে অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর উপাধ্যক্ষ জনাব মোশাররফ হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিভিল টেকনোলজির বিভাগীয় প্রধান আব্দুল মান্নান, আর এস বিভাগীয় প্রধান নার্গিস আরা বেগম এবং নূরজাহান বীণা। উক্ত অনুষ্ঠানে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের অনুপ্রেরণা মূলক বক্তব্য রাখেন অতিথিবৃন্দরা এবং ভবিষতে এই ধরনের অনুষ্ঠান করার জন্য উৎসাহ প্রদান করেন “ইচ্ছে পূরন” কে। উভয় পর্বের অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে ছিলেন “ইচ্ছে পূরন” এর মোঃ মুসাব্বির হোসেন।

আরো খবর: