সবুজ বার্তা প্রসঙ্গে

সবুজ বার্তা

 আমরা শিশুদের কথা বলি

 

সবুজ বার্তার নামকরণঃ

সবুজ বার্তা প্রধানত দুইটি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে নামকরণ করেছে। শিশুদের চাঞ্চল্যের রঙ সবুজ । এছাড়া সকল ইতিবাচক, সুন্দর ইত্যাদি ভালোর রঙ সবুজ। আর এজন্য ‘‘সবুজ’’ নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যদিকে এ শিশু অনলাইন পত্রিকাটি কুষ্টিয়া জেলা থেকে প্রকাশিত হয়েছে। বাংলার এতিহ্যবাহি সাংবাদিক কাঙাল হরিণাথ এর ‘গ্রাম বার্তা’ কে অনুসরণ করে ‘‘বার্তা’’ শব্দটি নেওয়া হয়েছে। কিছু শিশুদের উপস্থিতিতে তাদের ভোট এর মাধ্যমে এ নাম নির্বাচন করা হয়।

 

লোগো এর বৈশিষ্ট্যঃ

লোগো তে ব্যবহার করা হয়েছে সবুজ এবং কালোর মিশ্রন। সবুজ এর বৈশিষ্ট্য নামকরণ এর মধ্যে উল্লেখ করা হয়েছে। কালো দ্বারা বোঝানো হচ্ছে শোক ও অন্ধকারকে। বাংলাদেশ এখনো শিশু অধিকার বাসত্মবায়ন এখনো হয়নি। যার কারণে আমরা শোক প্রকাশ করছি। যেদিন বাংলাদেশে পুরোপুরি শিশু অধিকার বাস্তবায়ন হবে সেদিন আমরা এ রঙ এর পরিবর্তন আনবো।

 

আমাদের কার্যক্রমঃ

আমরা সারা বাংলাদেশ থেকে শিশুদের সংগৃহিত শিশুদের খবরগুলো তুলে ধরি। এ ছাড়া আমরা ব্যাতিক্রমধর্মীতা নিয়ে এসেছি  তথ্য ও প্রযুক্তি এবং সারা বিশ্বের শিশু এ বিষয় নিয়ে। তথ্য ও প্রযুক্তি এর মধ্যমে দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন প্রযুক্তির খবর শিশুতোষ করে তুলে ধরা হয় যার মাধ্যমে শিশুরা এ বিষয়ে জানতে পারে এছাড়া শিশুরা কিভাবে শিশুরা তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার করতে পারে তা তুলে ধরা হয়। সারা বিশ্বের শিশুরা কেমন আছে বা তাদের দেশের শিশুরাই বা কিভাবে আছে তা তুলে ধরা হয়। এ ছাড়া আরো অনেক বিষয়ে নতুনত্ব আছে আমাদের এ অনলাইন শিশু পত্রিকায়।  সর্বোপরি শিশু অধিকার বাস্তবায়ন করায় আমাদের মূল লক্ষ্য।

সবুজ বার্তা গঠন পটভূমিঃ

কিছু শিশু একত্রিত হয়ে  সামগ্রিক বিষয় চিন্তা ভাবনা করে দেখে যে, বাংলাদেশে হাতে গোনা কিছু সংখ্যক শিশুদের জন্য পোর্টাল আছে। কিন্তু এ পোর্টাল গুলো বেশি সংখ্যক শিশুদের পাশাপাশি গন-মানুষের কাছে পৌছাতে পারছেনা। সকল স্তরের সকল শিশুর কাছে পৌছানোর জন্য একত্রিত হওয়া শিশুরা সিদ্ধান্ত নেয় যে, এমন একটি শিশু পোর্টাল তৈরী করতে হবে যাতে শিশুর সকল বিষয় এতে প্রতিফলিত হয়। এছাড়া সমগ্র বাংলাদেশের শিশুদের সবধরনের খবরগুলো এখানে পাওয়া যায়।
একত্রিত হওয়া অল্প কিছু শিশুরা তাদের টিফিন খরচ এবং পকেট খরচ বাচিয়ে অল্প অল্প করে টাকা জমায় সবুজ বার্তা তৈরী করার জন্য। সবুজ বার্তার ওয়েবসাইট এর ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট ও করেছে এক শিশু। অবশেষে আগষ্ট ২০১৩ এর দিকে ডোমেইন এবং হোস্টিং ক্রয় করে সামগ্রিক কার্যক্রম পরীক্ষামূলক ভাবে শুরু হয় সবুজ বার্তার।

এখন অনেক শিশু সম্পৃক্ত হয়েছে সবুজ বার্তার কার্যক্রমের সাথে। আশা করছি আপনারাও আপনাদের সহযোগিতার হাত আমাদের জন্য বাড়িয়ে দিবেন।

 

আমাদের এ পথচলায় আমরা আপনাকে আমাদের সাথে পাবো এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

 

সবুজ বার্তা দর্শন এর জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।